লেনদেনের শীর্ষে জ্বালানি খাত

স্টাফ রিপোর্টার, দুরবিন ডটকম:

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে মঙ্গলবার, ৬ জুন সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে জ্বালানি খাতে। মার্কেট দিনের শুরু থেকেই পজিটিভ ছিল। তবে সারাদিন একটু ওঠা নামা ছিল বাজারে। শেষ কিছু মুহূর্তে মার্কেট ভাল বাই পেশারে আরও উপরে অবস্থান নিতে পেরেছে।  সেই কারণে অনেক কোম্পানির দর দাম আগের তুলনায় অনেক বেড়েছে। সেই সাথে বেড়েছে ট্রেড ভলিউইমও। তুলনামুলকভাবে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে জ্বালানি খাতে। অন্যান্য খাতের থেকে বেশি ক্যাশ ফ্লো দেখা গেছে। অন্তরভুক্ত কোম্পানি গুলোর দামও বৃদ্ধি পেয়েছে।

লেনদেনের ভিত্তিতে দেখলে আজকে দ্বিতীয় ও তৃতীয় অবস্থানে ছিল টেক্সটাইল খাত এবং ব্যাংকিং খাত। উভয় খাতেই আগের চেয়ে লেনদেন বেশি হয়েছে। তুলনামুলক ভাবে মার্কেটের বাকি খাতগুলোর চেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে উভয় খাতেই। বলা যেতে পারে যে বিনিয়োগকারীরা এই খাতগুলোতে ট্রেড বেশি করছে।

জ্বালানি খাত : লেনদেনের ভিত্তিতে সবচেয়ে ভাল অবস্থানে ছিল জ্বালানি খাত। এই  খাতে আজকে মোট  লেনদেনের পরিমান ছিল ১২৮.৯ কোটি টাকা যা আগের দিনের তুলনায় ৩.৫০ কোটি টাকার মত বেশি। বিগত দিনের চেয়ে আজকে এই খাতে লেনদেন বেড়েছে ২.৭৯%। মোট লেনদেনে এই খাতের অবদান ছিল ২১.০১%।

এই খাতে লেনদেন হওয়া ১৮ টি কোম্পানির মধ্যে বেড়েছে ৭ টির, কমেছে ৮টি কোম্পানির শেয়ারের দাম এবং অপরিবর্তিত ছিল  ৩টি কোম্পানির শেয়ারের দাম।

সর্বাধিক বৃদ্ধি পাওয়া শেয়ার ছিল বিডি ওয়েলডিং লিমিটেডের যা আজকে ১৪.৮ টাকায় লেনদেন সমাপ্ত করে। আগের দিনের তুলনায় প্রায় ৩.৫০% বেশি। অন্যদিকে এই খাতে সর্বাধিক হ্রাস পাওয়া শেয়ার ছিল সামিট পাওয়ার যা আজকে ৪১.৫  টাকায় লেনদেন শেষ করে। আগের দিনের তুলনায় প্রায় ০.৯৫% কম।

টেক্সটাইল খাত  :  লেনদেনের ভিত্তিতে টেক্সটাইল খাত দ্বিতীয় অবস্থানে দিন শেষ করেছে। টেক্সটাইল খাতে মোট লেনদেনের পরিমান ছিল ১০৮.৯ কোটি টাকার মত যা আগের দিনের তুলনায় প্রায় ২৫.৭০ কোটি টাকার মত বেশি। বিগত দিনের চেয়ে আজকে এই খাতে বিনিয়োগ বেড়েছে ৩০.৮৯%। মোট লেনদেনে এই খাতের অবদান ছিল ১৬.০৮%।

লেনদেন হওয়া ৪৭টি কোম্পানির মধ্যে বেড়েছে ২৭টি, কমেছে ১৪ টি কোম্পানির এবং অপরিবর্তিত  ছিল ৭টি কোম্পানির শেয়ারের দাম।

সর্বাধিক বৃদ্ধি পাওয়া শেয়ার ছিল তস্রিফা লিমিটেডের। এই শেয়ারটি ৩১.১ টাকায় লেনদেন সমাপ্ত করে যা আগের দিনের তুলনায় প্রায় ৬.১৪% বেশি। অন্যদিকে এই খাতে সর্বাধিক হ্রাস পাওয়া শেয়ার ছিল জাহিন স্পিন লিমিটেডের যা ২৫.৭ টাকায় লেনদেন সমাপ্ত করে যা আগের দিনের তুলনায় ১.৯১% কম।

ব্যাংকিং খাত :  লেনদেনের ভিত্তিতে ব্যাংকিং খাত তৃতীয় অবস্থানে দিন শেষ করেছে। মোট লেনদেনের পরিমান ছিল ৯২.২ কোটি টাকা যা আগে দিনের তুলনায় ১৫ কোটি টাকার মত বেশি। বিগত দিনের চেয়ে আজকে এই খাতে লেনদেন বৃদ্ধি পেয়েছে ১৯.৮৭% । মোট লেনদেনে এই খাতের অবদান ছিল ১৪.৭৮%।

লেনদেন হওয়া ২৮ টি কোম্পানির মধ্যে বেড়েছে মাত্র ১৯টি, কমেছে ৭ টি এবং অপরিবর্তিত ছিল ৪ টি কোম্পানির শেয়ারের দাম।

সর্বাধিক বৃদ্ধি পাওয়া শেয়ার ছিল আইএফআইসি ব্যাংকের যা দিন শেষে ১৭.৪ টাকায় লেনদেন সমাপ্ত করে। আগের দিনের তুলনায় কোম্পানিটির দাম প্রায় ৪.৮২ % বেশি।  এই খাতে সর্বাধিক হ্রাস পাওয়া শেয়ার ছিল ন্যাশনাল ব্যাংকের যা ১৫.২৭% হ্রাস পেয়ে ১১.১ টাকায় লেনদেন সমাপ্ত করেছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৩৮ ঘণ্টা/০৪ জুন, ২০১৭/টিআর/দুরবিন ডটকম।


সম্পাদক: আবু মুস্তাফিজ

৩/১৯, ব্লক-বি, হুমায়ুন রোড, মোহাম্মদপুর, ঢাকা