হার্ডিঞ্জ ব্রিজে এবারের ‘ইত্যাদি’র মঞ্চ

ডেস্ক রিপোর্ট, দুরবিন ডটকম:

দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় বিনোদনধর্মী টিভি ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ‘ইত্যাদি’। বরাবরই এটি রচনা, পরিচালনা ও উপস্থাপনা করে থাকেন দেশের নামকরা উপস্থাপক হানিফ সংকেত।

ইতিহাস, ঐতিহ্য, সভ্যতা, সংস্কৃতি, পর্যটন ও দর্শনীয় স্থানগুলোতে সাধারণত ‘ইত্যাদি’র মঞ্চ তৈরি করা হয়। সেই ধারাবাহিকতায় এবারের পর্ব ধারণ করা হয়েছে ঈশ্বরদীর পাকশীতে অবস্থিত হার্ডিঞ্জ ব্রিজ পয়েন্টে। পেছনে রেল সেতু হার্ডিঞ্জ ব্রিজ, সামনে আছে লালন শাহ সেতু আর মাঝখানে পাবনার উল্লেখযোগ্য স্থাপনা ও বৈশিষ্ট্য নিয়ে নির্মিত হয়েছে এবারের ‘ইত্যাদি’র মঞ্চ।

গত ১৯ সেপ্টেম্বর হার্ডিঞ্জ ব্রিজের সামনে হাজার হাজার দর্শকের উপস্থিতিতে ধারণ করা হয় ‘ইত্যাদি’র এবারের পর্বটি। পাবনার ইতিহাস, ঐতিহ্য এবং মহানায়িকা সুচিত্রা সেনের ওপর তথ্যসমৃদ্ধ প্রতিবেদনের পাশাপাশি এবারের পর্বে থাকছে পাবনা মানসিক হাসপাতালের ওপর অনুসন্ধানী প্রতিবেদন। সেখানে উপস্থিত থাকবেন ছোট ও বড় পর্দার জনপ্রিয় অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী। আরও থাকবেন নাট্যকার বৃন্দাবন দাস ও অভিনেত্রী শাহনাজ খুশি।

এবারের পর্বে মূল গান আছে দুটি। একটি গেয়েছেন পাবনার কৃতী শিল্পী বাপ্পা মজুমদার ও তার ব্যান্ডদল দলছুট। অন্যটি গেয়েছেন একই অঞ্চলের অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী। ‘ইত্যাদি’র এবারের পর্বটি ২৯ সেপ্টেম্বর শুক্রবার রাত ৮টার বাংলা সংবাদের পর বিটিভি ও বিটিভি ওয়ার্ল্ডে প্রচার করা হবে।

প্রতি ঈদেই ‘ইত্যাদি’র একটা বিশেষ পর্ব থাকে। কিন্তু রচয়িতা, পরিচালক ও উপস্থাপক হানিফ সংকেত হজ পালনে সৌদি আরব থাকায় এবার ঈদে ‘ইত্যাদি’র কোনো আয়োজন ছিল না। তিনি হজ থেকে ফিরলে শুরু হয় এবারের ‘ইত্যাদি’র কার্যক্রম। সাধারণত তিন মাস পর পর প্রচারিত হয় কৌতুক ও ব্যাঙ্গাত্মক ঘরোনার এ ম্যাগাজিন অনুষ্ঠানটি। ১৯৯০-এর দশকে শুরু হওয়া অনুষ্ঠানটি প্রায় ২৭ বছর ধরে প্রচার করছে বিটিভি।

‘ইত্যাদি’র প্রধান আকর্ষণীয় দিক হলো- সমাজের নানা অসংগতিকে বিদ্রুপ ও রসময় করে উপস্থাপন করা। এছাড়াও নানা-নাতী ও বিদেশি ছবির বাংলা সংলাপও এর বিশেষ আকর্ষণ। সর্বস্তরের মানুষের কাছেই এই ম্যাগাজিন অনুষ্ঠানটি ব্যাপক জনপ্রিয়। তাহলে এবারের পর্বটি দেখতে অপেক্ষা করুন ২৯ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত আর চোখ রাখুন বিটিভি ও বিটিভি ওয়ার্ল্ডের পর্দায়।

বাংলাদেশ সময়: ১২৪৪ ঘন্টা, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭/টিআর/দুরবিন ডটকম।


সম্পাদক: আবু মুস্তাফিজ

৩/১৯, ব্লক-বি, হুমায়ুন রোড, মোহাম্মদপুর, ঢাকা