বিএনপি নেতা এমকে আনোয়ারের ইন্তেকাল

ডেস্ক রিপোর্টার, দুরবিন ডটকম:

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী এম কে আনোয়ার ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। সোমবার দিবাগত রাত একটার কিছু পরে ঢাকার এলিফেন্ট রোডে নিজ বাড়িতে তিনি ইন্তেকাল করেন।

তার প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হবে রাজধানীর কাঁটাবনে। পরে রাজধানীতে আরো দুটি জানাজা শেষে নিজ গ্রামে তাঁর দাফন সম্পন্ন হবে।

পরিবারের সদস্যরা জানান, সকাল ১০টায় কাঁটাবন মসজিদে, বেলা ১২টায় নয়া পল্টনে বিএনপি কার্যালয়ের সামনে, জোহরের পর সংসদ ভবনের দক্ষিণ প্লাজায় এম কে আনোয়ারের জানাজা হবে। অসুস্থতার কারণে দীর্ঘদিন তাকে বিএনপির স্থায়ী কমিটির বৈঠকেও অংশ নিতে দেখা যায়নি।

বিএনপির মিডিয়া উইংয়ের কর্মকর্তা শায়রুল কবির খান জানান, দলের এই নেতা অনেক দিন ধরে বার্ধক্যজনিত নানা রোগে ভুগছিলেন। তাঁর বয়স হয়েছিল ৮৫ বছর।

স্ত্রী, এক মেয়ে ও এক ছেলে রেখে গেছেন এম কে আনোয়ার। তার মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে বিএনপির নেতাকর্মীদের মধ্যে শোকের ছায়া নেমে আসে। অনেকেই গভীর রাতে তার বাসায় ছুটে যান।

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সকালে এলিফ্যান্ট রোডে গিয়ে শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেনা জানান।

এম কে আনোয়ারের জন্ম ১৯৩৩ সালে কুমিল্লায়। তিনি পাকিস্তান ও বাংলাদেশ সরকারের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা হিসেবে তিন দশকের বেশি সময় দায়িত্ব পালন করেন।

চাকরিজীবন থেকে অবসর নিয়ে বিগত শতাব্দীর নব্বইয়ের দশকের শুরুতে তিনি বিএনপির রাজনীতিতে যুক্ত হন। এর পর বিভিন্ন সময়ে পাঁচবার জাতীয় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। এর মধ্যে দুবার মন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন। দুই বছর ধরেই তিনি নানা শারীরিক সমস্যায় ভুগছিলেন। এর মধ্যে এই সরকারের আমলেও বিভিন্ন সময়ে জেল খেটেছেন।

কুমিল্লার হোমনা আসন থেকে এই নেতা একাধিকবার জাতীয় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। দুবার মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

বাংলাদেশ সময়: ১১৩০ ঘন্টা, ২৪ অক্টোবর, ২০১৭/টিআর/দুরবিন ডটকম।

 


সম্পাদক: আবু মুস্তাফিজ

৩/১৯, ব্লক-বি, হুমায়ুন রোড, মোহাম্মদপুর, ঢাকা